আট কোম্পানির তৃতীয় প্রান্তিক প্রকাশ

প্রচ্ছদ » কোম্পানি সংবাদ » আট কোম্পানির তৃতীয় প্রান্তিক প্রকাশ

পুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৮ কোম্পানি তাদের তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই’১৬-মার্চ’১৭) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে । নিম্নে তা তুলে ধরা হলো-

কাশেম ড্রাইসেল: জুলাই’১৬ থেকে মার্চ’১৭ পর্যন্ত ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮৩ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১.৭৯ টাকা।
সর্বশেষ ৩ মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ৩৪ পয়সা। গত বছর একই সময়ে যা ছিল ৩৩ পয়সা।

এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৪৪.৫৩ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৪৮.০৪ টাকা।
এছাড়া শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.২৮ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৩.৫৬ টাকা।

আরগণ ডেনিমস: জুলাই’১৬ থেকে মার্চ’১৭ পর্যন্ত ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৭০ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১.৯৪ টাকা।
সর্বশেষ ৩ মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.৯৭ টাকা। গত বছর একই সময়ে যা ছিল ০.৬২।

এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২৫.৩৯ টাকা। যা ৩০ জুন, ২০১৬ শেষে ছিল ২৭.১০ টাকা।
এছাড়া শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.৯২ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ২.৬৭ টাকা।

মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ: জুলাই’১৬ থেকে মার্চ’১৭ পর্যন্ত ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৯ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ০.৭১ টাকা। আলোচিত সময়ে ইপিএস ২৫.৩২ শতাংশ বেড়েছে। সর্বশেষ ৩ মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.৩৬ টাকা। গত বছর একই সময়ে যা ছিল ০.৩৫ টাকা।

এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৪৩.২০ টাকা। যা ৩০ জুন, ২০১৬ শেষে ছিল ৪২.৩১ টাকা।
এছাড়া শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০১ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১.২৪ টাকা।

শ্যামপুর সুগার মিলস: জুলাই’১৬ থেকে মার্চ’১৭ পর্যন্ত ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৪৩.৬২ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫১.৭২ টাকা।
সর্বশেষ ৩ মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানির লোকসান হয়েছে ৮.৬৩ টাকা। গত বছর একই সময়ে যা ছিল ১২.৫০।

এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি দায় (এনএভি) হয়েছে ৬৩১.২৪ টাকা। যা ৩০ জুন, ২০১৬ শেষে ছিল ৫৮৭.৬২ টাকা।
এছাড়া শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৪২.৫৭ টাকা (মাইনাস)। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫০.৬৬ টাকা (মাইনাস)।

আনোয়ার গ্যালভানাইজিং: জুলাই’১৬ থেকে মার্চ’১৭ পর্যন্ত ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৮ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ০.৭১ টাকা। দেখা যাচ্ছে আলোচিত সময়ের ব্যবধানে কোম্পানিটির ইপিএস ২৪ শতাংশ বেড়েছে।

সর্বশেষ ৩ মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.৪২ টাকা। গত বছর একই সময়ে যা ছিল ০.৩৪ টাকা। অর্থাৎ আলোচিত সময়ের ব্যবধানে কোম্পানিটির ইপিএস ২৪ শতাংশ বেড়েছে।
এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৮.৬৫ টাকা। যা ৩০ জুন, ২০১৬ শেষে ছিল ৮.৪২ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.৮০ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ২.৪১ টাকা।

ন্যাশনাল পলিমার: জুলাই’১৬ থেকে মার্চ’১৭ পর্যন্ত ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.০৪ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১.৮৯ টাকা। দেখা যাচ্ছে আলোচিত সময়ের ব্যবধানে কোম্পানিটির ইপিএস ৮ শতাংশ বেড়েছে।

সর্বশেষ ৩ মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.৫৩ টাকা। গত বছর একই সময়ে যা ছিল ০.৭৪ টাকা। অর্থাৎ আলোচিত সময়ের ব্যবধানে কোম্পানিটির ইপিএস ২৮.৩৭ শতাংশ কমেছে।
এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৫০.২৬ টাকা। যা ৩০ জুন, ২০১৬ শেষে ছিল ৪৮.২২ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.১০ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ২.৪৯ টাকা।

ঝিলবাংলা সুগার মিলস: জুলাই’১৬ থেকে মার্চ’১৭ পর্যন্ত ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ২৬.৯৮ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৪০.২৭ টাকা।
সর্বশেষ ৩ মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানির লোকসান হয়েছে ২.৯৬ টাকা। গত বছর একই সময়ে যা ছিল ১১.২১। এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি দায় (এনএভি) হয়েছে ৩৯৭.৭১ টাকা।

রেনউইক যজ্ঞেশ্বর: তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরি নগদ প্রবাহ পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১১.৮৫ টাকা (নেগেটিভ) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩৩.৩৮ টাকা (নেগেটিভ)। যা এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২.২১ টাকা, এনওসিএফপিএস হয়েছে ০.৮৮ টাকা (নেগেটিভ) এবং ৩০ জুন ২০১৬ পর্যন্ত এনএভি হয়েছিলো ৩৫.৬৮ টাকা (নেগেটিভ)।

এদিকে গত তিন মাসে (জানুয়ারী-মার্চ’১৭) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ০.৮৩ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ০.৭৬ টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০