ঈদের দিনে পাঞ্জাবি ছাড়া কি হয়!

প্রচ্ছদ » লাইফস্টাইল » ঈদের দিনে পাঞ্জাবি ছাড়া কি হয়!

পুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক : ঈদের দিন পাঞ্জাবি না পরলে যেন নিজেকে ঠিক পরিপূর্ণ লাগে না। যে বয়সেরই হোক না কেন। শিশু, কিশোর, তরুণ থেকে যেকোনো বয়সী, ঈদে পাঞ্জাবি চাই- এটাই যেন সব ছেলে-বুড়োর মনের কথা। ঈদের সকালে গোসলের পর পাঞ্জাবি ছাড়া আর কী! নতুন পাঞ্জাবি গায়ে চড়িয়ে হাতে আতরের গন্ধ ছড়িয়ে কোলাকুলি করাতেই ঈদের আনন্দ।

আর বরাবরের মতোই ছেলেদের পোশাকে বাঙালিয়ানা এনে দেয় পাঞ্জাবি। ধর্মীয়, সংস্কৃতিক বা বিয়ের উৎসবই হোক, বাঙালি পোশাকের অন্যতম জায়গা দখল করে আছে পাঞ্জাবি।

এবার ঈদে কেমন হবে ছেলেদের পাঞ্জাবি। রঙ বা কাটে কোনো ধারা? পোশাক বিক্রির সঙ্গে জড়িত প্রতিষ্ঠানগুলো বলছেন, এবার যেহেতু গরমে ঈদ, তাই হালকা রংগুলো প্রাধান্য পাবে। আর পাঞ্জাবির কাপড়ে আরাম দিতে সুতির কোনো বিকল্প নেই। দিনের বেলায় পরার জন্য খুব বেশি জমকালো না বরং অল্প নকশাই ভালো দেখাবে। একাধারে স্বাচ্ছন্দ্য এবং ট্রেন্ড দুটোই বহাল থাকে পাঞ্জাবিতে।

সাধারণত ফরমাল, স্লিম আর শর্ট-এই তিন ধরনের পাঞ্জাবিই বেশি দেখা যাচ্ছে এবারের বাজারে। আর এই তিনটির বাইরে রয়েছে এক্সিকিউটিভ পাঞ্জাবি। এ ধরনের পাঞ্জাবি, শর্ট পাঞ্জাবি থেকে লম্বায় একটু বড় হয়, কিন্তু ফরমালের মতো বেশি নয়।

কথা হয় ইয়লোতে করপোরেট চাকরিজীবী তোসাদ্দেক হোসেনের সঙ্গে। তিনি এই ঈদে কেমন পাঞ্জাবি খুঁজছেন সেকথাই জানালেন তিনি। তিনি বলেন, প্রচন্ড গরম। ঈদ করতে গ্রামে যাব। সেখানে আরা বেশি সমস্যা। বিদ্যুৎ বেশিরভাগ সময় থাকে না। ফলে একটু হালকা রঙের পাঞ্জবি খুঁজছি।

আড়ংয়ের বসুন্ধরা শপিং মলের ব্যবস্থাপক রফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, “আড়ং সব সময় ক্রেতাদের চাহিদা ও ফ্যাশনকে গুরুত্ব দেয়। এবারে ঈদকে সামনে রেখেও আমরা বেশ প্রস্তুতি নিয়েছি। পাঞ্জাবি যেহেতু পুরুষের পাঞ্জাবি চাই। তাই আমরা বাহারি পাঞ্জাবি নিয়ে এসেছি। সব ধরনের ক্রেতারা তাদের সামর্থ অনুযায়ী পাঞ্জবি কিনতে পারবেন।”

স্মার্টটেক্সের বিক্রয়কর্মী সোহেল তানভীর বললেন, “তাদের পাঞ্জাবিগুলোও বিশেষ নজরকারা। কারণ মান ও ফ্যাশনে তারা অন্যন্য। বসুন্ধরা সিটির বাইরে ধানমণ্ডি, গুলশানের বিপনি বিতানগুলো ক্রেতাদের জন্য হাল ফ্যাশনের পাঞ্জাবির পসরা সাজিয়ে বসেছে।”

এদিকে, নিজের কিংবা প্রিয়জনের জন্য পছন্দের পাঞ্জাবি কিনতে অনেকেই যেমন যাচ্ছেন প্রতিষ্ঠিত ও নামিদামি ব্র্যান্ডগুলোতে। আবার নিজের সামর্থ্য অনুযায়ি একটি পাঞ্জাবি কিনতে অনেকে যাচ্ছেন লোকাল বাজারে। রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোড সংলগ্ন প্রিয়াঙ্গন মার্কেট মানেই পাঞ্জাবির হাট। প্রিন্টেড পাঞ্জাবি অনেকটা কম থাকলেও সেখানে দেখা মেলে প্রচুর এমব্রয়ডারি আর লেইসের কাজ।

এ ছাড়া রাজধানীর উত্তরা, নিউমার্কেট, পুরান ঢাকা, এলিফ্যান্ট রোডের মতো লোকাল মার্কেটগুলোতে পাওয়া যাবে পাঞ্জাবি।

সূত্র: নিউজবাংলাদেশ.কম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০