পুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক : দেখতে অনেক সুন্দরী নন্দিতা। কিন্তু ছবি তুলতে বললেই রাজ্যের বিরক্তি ভর করে তার ওপর। বিরক্ত না হয়েই বা উপায় কি! ছবিতে তার চেহারার যে প্রতিচ্ছবি আসে তা নিজের কাছেই লজ্জা পাওয়ার মতো।
শুধু নন্দিতা নয়; অনেকেরই এই ব্যাপারে অভিযোগ, বাস্তবে যতটা সুন্দর ছবিতে ঠিক ততোটা সুন্দর দেখায় না। ছবিতে নিজেকে আকর্ষণীয় করতে কিছু টিপস জানাচ্ছে অর্থসূচক-
-আপনার সবচেয়ে ভালো বন্ধু হতে পারে আয়না। আয়নার সামনে গিয়ে হাসুন এবং চিহ্নিত করুন আপনাকে ভালো লাগার হাসি। যে হাসিতে আপনি অমলিন থাকেন।
-মোবাইলে বা ক্যামেরায় নিজের হাসির ছবি তুলতে থাকুন আপনার কাঙ্ক্ষিত স্মাইলটি খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত। পরবর্তীতে যখনই ছবি তুলবেন এই হাসিটি দিতে ভুলবেন না।
-মুখ থেকে কিছুটা নিচের পজিশনে ক্যামেরা রেখে কোনো ছবি তুলবেন না। এতে নাক এবং থুতনির আকার ক্যামেরার লেন্সে খুব বড় হয়ে ধরা পড়ে। এই সমস্যা এড়াতে ক্যামেরা সবসময় নিজের মুখ থেকে একটু ওপরের দিকে রেখে ছবি তুলবেন।
-যেসব মেয়েদের চুল কম তারা পেছনের সব চুল সামনে আনুন। এতে করে চুল আরও ঘন দেখাবে। ছবিও সুন্দর আসবে আর স্টুডিও ফটোশুটের ক্ষেত্রে পোশাক যদি ভালো মতো ফিট না থাকে তাহলে ড্রেসের পেছনে ক্লিপ লাগিয়ে নিজের পছন্দমত ফিট করে নিন।
-ছবি তোলার সময় ক্যামেরার সামনে একেবারে সোজাসুজি হয়ে দাড়াবেন না। এতে আপনার মুখের ও শরীরের সমস্যাগুলো সরাসরি প্রকাশ পাবে। ক্যামেরার সামনে সরাসারি দাড়ালে আপনার কাঁধ ছবিতে যতোটা চওড়া দেখা যাবে একটু ভিন্ন অ্যাঙ্গেলে দাড়ালে তার চেয়ে কম চওড়া মনে হবে।
-আপনার চোখের দৃষ্টি যদি সরাসরি ক্যামেরার দিকে না দিতে চান তবে অন্য দিকে তাকিয়ে থাকার মুহূর্তে আপনার চোখের মনি এমন ভাবে রাখবেন যেন ক্যামেরার ফ্রেমে চোখের সাদা অংশের আধিক্য দেখা না যায়। এতে আপনার অভিব্যক্তিতে ফ্যাকাশে ভাব চলে যাবে।
-আপনার হাতটি শরীরের সাথে খুব বেশি চেপে না রেখে সামান্য আলতো করে রাখুন। যখনই হাত শরীরের সাথে চেপে রাখবেন কিংবা জড়ো করে রাখবেন, তখন আপনাকে এবং আপনার হাত স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি মোটা মনে হবে।
-ছবি তোলার ক্ষেত্রে আপনার দাঁড়ানোর ভঙ্গিটা যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। এক পায়ের সাথে আরেক পা কিছুটা আড়াআড়ি করে দাঁড়িয়ে ছবির জন্য পোজ দেওয়া ভালো। এতে দাঁড়ানোর ভঙ্গিটা সাবলীল হয় এবং ছবিতেও সুন্দর দেখায়। তবে লক্ষ রাখতে হবে পা দুটি যেন খুব বেশি আড়াআড়ি করে রাখা না হয়। এতে দাঁড়ানোর ব্যাপারটা দৃষ্টিকটু মনে হবে।
-অনেকেই দুই হাত সমান করে দাঁড়িয়ে ছবি তোলেন। এতে আপনার চেহারায় একটা বোকা ভাব চলে আসে। কোমরে হাত রাখলে হাতের আঙুলগুলো ছড়িয়ে রাখবেন না। এতে আঙুলগুলো বেশি দৃষ্টিগোচর হবে।
-মুখমণ্ডলের বিভিন্ন পাশ থেকে ভিন্ন রকম লুক আসে। হয়তো মুখমণ্ডলের কোন এক পার্শ্বে আপনার সুন্দর এটা তিল আছে; যা আপনার অভিব্যক্তিতে ইতিবাচক ও ভিন্ন মাত্রা নিয়ে আসে। আবার কারো হয়তো মুখমণ্ডলের কোন পার্শ্বে বিভিন্ন ধরনের দাগ আছে; যা সে ছবিতে লুকাতে চাইবে। তাই আপনিই খুঁজে বের করুন আপনার সাবলীল ফেসুয়াল সাইড এবং সে অনুযায়ী ছবি তোলার সময় সে দিকটিকে প্রাধান্য দিন।
-ক্যামেরার সামনে আপনার অভিব্যক্তি যেন কৃত্রিম না হয়। ছবি তোলার জন্য পোজ দিচ্ছেন, তা যেন বোঝা না যায়।
-ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেই মন থেকে হাসবেন। হাসি না আসলে আপনার জীবনে ঘটে যাওয়া মজার কোন ঘটনা ভেবে হাসুন। ন্যাচারাল হাসি সুন্দর ছবির আসল রহস্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০