পুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক : যে হারে গরম দিনের পর দিন বাড়ছে, খাবার যত হাল্কা আর সহজপাচ্য হয়, ততই ভাল। এতে শরীর খারাপ হবার সম্ভাবানও কমে অনেক। কাঁচা আম দিয়ে টক ডাল এখন সকলের বাড়িতে প্রায় রোজকার খাবার। অর্থসূচকের আজকের আয়োজনেও থাকছে আলাদা-

আম ডাল

উপকরণ: কাঁচা আম ২টি (ছোট), মসুর ডাল ১ কাপ, মুগ ডাল ১ কাপ, পাঁচ ফোড়ন আধ চা চামচ, লবণ স্বাদ মতো, চিনি এক চিমটি, শুকনা মরিচ ৪-৫টি, হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ, জিরা আধা চা চামচ, সরষের, তেল আধা চা চামচ, লেবু অর্ধেক ।

প্রণালী: আমের খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে কেটে লবণ ও সামান্য হলুদ মাখিয়ে রাখুন। মুসুর ডাল ও মুগ ডাল ধুয়ে লবণ-হলুদ দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। কড়াইয়ে সরষের তেল গরম করে পাঁচ ফোড়ন, শুকনা মরিচ আর শা-জিরে ফোড়ন দিন। সামান্য আদা বাটাও দিতে পারেন। এ বার আমের টুকরোগুলো ফোড়নের মধ্যে দিয়ে সামান্য ভেজে নিন। তার পর সেদ্ধ করে রাখা ডাল তাতে দিয়ে দিন। স্বাদ মতো লবণ, চিনি দিন। প্রয়োজন অনুযায়ী পানি দিয়ে ডাল ফুটতে দিন। সব শেষে লেবু কেটে ডালের উপরে ছড়িয়ে নামিয়ে নিন।

ঘন ডালে সজনে

উপকরণ: সজনে ডাঁটা পরিমাণমতো, মসুর ডাল ১/২ কাপ, লবণ স্বাদমতো, পাঁচফোড়ন সামান্য, কাঁচামরিচ ৩/৪টি, সয়াবিন তেল ৪ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, আদা বাটা ২ চা চামচ, শুকনা মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ২ চা চামচ, রসুন বাটা ২ চা চামচ, ঘি ২ টেবিল চামচ।
প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে ডাল সামান্য হলুদ ও লবণ দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। (ডালে গরম পানি দেবেন) কড়াইয়ে তেল দিয়ে রসুন বাটা, আদা বাটা, শুকনা মরিচ গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া দিয়ে মসলা কষিয়ে নিন। কষানো হয়ে গেলেসজনেডাঁটা ও সামান্য পানি দিয়ে ঢেকে দিন। এরপর ডাল দিয়ে পরিমাণমতো দিয়ে ঢেকে ৮-১০ মিনিট রান্না করুন। অন্য কড়াইয়ে ঘি গরম করে পাঁচফোড়ন দিয়ে ডালের মিশ্রণ দিয়ে কাঁচামরিচ ও জিরা টালা গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে নিন।

বুটের ডাল

উপকরণ: বুটের ডাল ২ কাপ, পেঁয়াজ কুচি এক কাপ , পেঁয়াজ বাটা ১ চা চামচ ,আদা বাটা ১ চা চামচ , রসুন বাটা ১ চ চামচ , জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ , ধনে গুঁড়া ১ চ চামচ , লাল মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ , হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ , টমেটো সস ২ টেবিল চামচ, গরম মশলা আধা চা চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ , কাঁচা মরিচ ৪/৫ টা , লবন স্বাদ অনুযায়ী, তেল ১/৪ কাপ ও পানি পরিমানমতো ।

প্রণালী: ডাল ধুয়ে একটা পাত্রে ভিজিয়ে রাখুন। একটি পাত্রে বা প্রেসার কুকারে তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুচি বেরেস্তা করে অর্ধেক টা তুলে রাখুন রাখুন। এবার বাকি বেরেস্তায় সব বাটা মশলা দিয়ে কিছুক্ষণ কষানোর পর মরিচ গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া, ধনে গুঁড়া ও জিরা গুঁড়া দিয়ে ভাল করে কষিয়ে নিন। এবার ডাল দিয়ে দিন।
মাঝারি আঁচে কিছুক্ষণ কষিয়ে টমেটো সস, গরম মশলা ও লবন দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে দেড়/দুই কাপ পানি দিয়ে ঢাকনা দিন। ১৫/২০ মিনিট পর দেখুন ডাল নরম হয়ে গেছে না কি। ভাজা জিরার গুঁড়া ও কাঁচা মরিচ দিয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে রাখুন। তেল উপরে উঠে আসলে বেরেস্তা ছিটিয়ে দিন।

পাঁচমিশালি খাট্টা ডাল

উপকরণ: আম বাটা ২ টেবিল চামচ, মুগ, মসুর, মাসকলাই, অড়হড় ও ছোলার ডাল প্রতিটি ১ মুঠ করে নিতে হবে, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, কাঁচামরিচ ফালি ৫-৬টি, জিরা বাটা আধা চা চামচ, রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ, আদা বাটা আধা চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, তেল ২ টেবিল চামচ, তেজপাতা ২ টা ও দারচিনি ২ টুকরা।
প্রণালী: আম কাটা বাদে ডাল ধুয়ে সব উপকরণ দিয়ে মাখিয়ে গরম পানি দিয়ে সেদ্ধ করতে হবে। ডাল সেদ্ধ হয়ে ঘন হয়ে এলে আম দিয়ে কিছুক্ষণ চুলায় রেখে বাগার দিতে হবে।

মসুর ডাল

উপকরন: মসুরের ডাল আধা পোয়া, বড় রসুন কুচি ১টি, পেয়াজ গোল কুচি ৩ টি, কাচা মরিচ ফালি ৩টি , হলুদের গুড়া আধা চা চামচ, ধনিয়া পাতা, লবন ও তেল পরিমান মত এবং জিরাসহ পাঁচ ফোড়ন।

প্রনালী: প্রথমে মসুরের ডাল পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিন। ডাল ধুয়ে পাত্রে পরিমান মত পানি, ৩-৪ কোয়া রসুন কুচি, ১টি পেয়াজ কুচি ও ৩ টা কাচা মরিচ ফালি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। ডাল সিদ্ধ হয়ে আধা চা-চামচ হলুদের গুড়া ও পরিমান মত লবন দিয়ে ভাল করে ঘন্ট করে নিন। তারপর ডালে যখন বলগ উঠবে তখন আর একটী পেয়াজ গোল করে কেটে ডালের মধ্যে ছেড়ে দিন। আরও ২-৩ মিনিট চুলায় আচ দিয়ে ডালের পাত্রটি নামিয়ে ফেলুন। এবার অন্য একটি পাত্র চুলায় দিয়ে পরিমান মত সয়াবিনের তেল দিয়ে গরম করে নিন। গরম তেলে ২-৩ কোয়া রসুন কুচি ও ১টি পেয়াজ কুচি দিয়ে গাড়ো বাদামী রঙ এ ভাজতে থাকুন। রসুন, পেয়াজ বাদামী রঙ এ হয়ে আসলে সামান্য জিরা-পাঁচফোড়ন তেলে ছেড়ে দিন।
তারপর তেলের মধ্যে ডাল ঢেলে ১-২ মিনিট নাড়ূন এবং ধনিয়া পাতা কুচি ছিটিয়ে দিন। এবার চুলার আঁচ কমিয়ে পাত্রটি চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন। দুপুরের খাবার বা রাতের খাবারের সাথে পরিবারে পরিবেশন করুন মজাদার মসুরের ডাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০