প্রযুক্তি ক্ষাতকে আরও লাভবান করতে একমাত্র সরকারকে পর্যবেক্ষণ করতে হবে

প্রচ্ছদ » সম্পাদকীয় » প্রযুক্তি ক্ষাতকে আরও লাভবান করতে একমাত্র সরকারকে পর্যবেক্ষণ করতে হবে

Mahmud sarafat ডিজিটাল বাংলাদেশ। শব্দটির সাথে বর্তমান সরকারের আমলে আমরা ব্যাপক ভাবে পরিচিত । পৃথিবী যখন প্রতিনিয়ত তার উন্নয়নের রুপ পরিবর্তন করছে, পাশাপাশি বাংলাদেশেরও প্রচুর উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড চলছে। এমন অবস্থায় সকল উন্নয়ন কার্যপ্রণালীর সাথে প্রযুক্তির সম্পর্ক অতপ্রতভাবে জড়িত।সেজন্য প্রযুক্তি ব্যবসায়ীদের অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে প্রযুক্তির আধুনিকায়ন চলছে প্রতিটি মূহুর্তজুড়ে। এবং সরকার প্রচুর পরিমান রাজস্ব আদায় করতে পারছে এ সকল ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে। কিন্তু তারপরও অনেক ধরনের ঘাটতি সম্মুখীন এই সেক্টরে কর্মরত সকল কর্মকর্তাগণ ও প্রতিষ্ঠান।

প্রযুক্তির ব্যবহার ছাড়া এখন পৃথিবী অচল। কারণ আধুনিক রাষ্ট্রে এমন কোন জায়গা নেয় যেখানে প্রযুক্তির ছোঁয়া নাই। প্রযুক্তি মানুষকে আরও সভ্য এবং সুরুচিশীল করে গড়ে তোলে। তাই এত সব প্রয়োজনীয় দিক থাকা স্বর্তেও এই সেক্টরের ব্যবসায়ী প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। তারা তাদের ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে বিশেষ একটি অগ্রহণযোগ্য রুচি প্রদর্শন করে আসছে শেষ কয়েকটি বছর। তারা তাদের ব্যবসায়ের প্রতি এক ধরনের অনিহা পোষণ করে। এর মূল কারণ পন্যের বিক্রয়ত্তর মুনাফা ।

দীর্ঘ কয়েকবছর ধরে প্রযুক্তি পণ্য সমূহ বাংলাদেশ আমদানি করে আসছে। আমাদের দেশে কয়েকটি মাধ্যমে এই পণ্য আসে। কিন্তু কোন কোন ক্ষেত্রে সরকার তার সঠিক রাজস্ব পাচ্ছে না। কারণ এই পণ্যসমূহের করের মাত্রা এখন আশানুরুপ পর্যায়ে এসে পৌঁছায় নাই। ফলে করের পরিমান যত কমতে থাকবে, আমদানীর পরিমানও বৃদ্ধি পাবে। তখন দেশ ও জাতি প্রযুক্তিগত দিক থেকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।

বাংলাদেশ দিনের পর দিন প্রযুক্তিগত জায়গা থেকে অনেক এগিয়ে যাচ্ছে। যার ফলে দেশ পাচ্ছে এক আলোকিত ভবিষ্যৎ। বর্তমানে পৃথিবীর প্রায় সকল উন্নত দেশ হতে বাংলাদেশ পন্য আমদানী করে থাকে।তবে ব্যবসায়ীদের বিশেষ চাহিদা হল যেন সরকার সকল পণ্যের শুল্ক ধীরে ধীরে কমায়। যাতে উন্নতদেশগুলোর ন্যায় বাংলাদেশও উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের পাশাপাশি দেশকে আরও সামনের দিকে নিতে পারে।

পরিলক্ষিত হচ্ছে যে সকল আমদানীকারক প্রযুক্তিপণ্যের আমদানীর সাথে জড়িত তাদের কেউ কেউ মাঝে মধ্যে কিছু সমস্যার সম্মুখীন হয়। সরকার ও তার সাহায্যকারী সংস্থাসমূহ যদি এ দিকে বিশেষ ভূমিকা রাখে তাহলে বার্ষিক আমদানীর মাত্রাও বহুগুন বৃদ্ধি পাবে, পাশাপাশি সরকারী রাজস্ব আদায় বেড়ে যাবে। যা একটি দেশকে প্রযুক্তি নির্ভর করে উন্নতদেশ হিসাবে রুপান্তর করতে তখন শুধুমাত্র সময়ের দাবি হিসাবে বিবেচিত হবে।

তাই এখনই সময় প্রযুক্তিগত ভাবে উন্নত পৃথিবী দেখতে হলে এখন প্রযুক্তি ব্যবসায়ীদের পাশে আরও ভালো ভাবে এসে দাঁড়াতে হবে সরকারকে। কারণ তাদের এই দুর্দশা একমাত্র দূর করতে পারে সরকার। তাহলেই এগিয়ে যেতে থাকবে দেশ ও জাতি ।

লেখকঃ মাহমুদ শারাফাত
প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও)
ক্রিয়েটিভ সিটি টেকনোলজিস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০