বলিয়ম অনুযায়ী লেনদেন আরো বাড়ার সুযোগ রয়েছে, সেদিকে এগুচ্ছে বাজার

প্রচ্ছদ » বাজার বিশ্লেষন » বলিয়ম অনুযায়ী লেনদেন আরো বাড়ার সুযোগ রয়েছে, সেদিকে এগুচ্ছে বাজার

পুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক : সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের উর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এইদিন শুরু থেকে উত্থান-পতন থাকলেও দেড় ঘন্টা পর ক্রয় চাপে টানা পরতে থাকে সূচক। এদিন সূচক বাড়লেও লেনদেন হওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। তবে টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২৯৭ কোটি টাকা।
বাজার বিশ্লেষকদের মতে,গত কয়েক দিনের ধারবাহিক উত্থানের পর বিনিয়োগকারীদের মধ্যে মুনাফা তুলে নেয়ার ঝোঁক বিরাজ করে। বিনিয়োগকারীরা ঝুঁকি নিয়ে বেশি দিন শেয়ার ধরে রাখতে চাচ্ছে না। তাই একটু লাভ থাকলেই বিক্রি করে বের হয়ে যাচ্ছেন। ২০১০ সালে বাজার ধসের পর থেকে কিছুতেই যেন বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থা ফিরে আসছে না। এরই জের ধরে গত তিন কার্যবাদিবস বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ার দর সংশোধন হয়েছে বলো মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
বিশ্লেকদের অভিমত, গতকালের কারেকশনের পর আজকের আবারও উত্থানে ফিরেছে বাজার। কারেকশনের পার আজকের সূচক ও লেনদেন বৃদ্ধি বাজারের জন্য শুভ ইঙ্গিত। কেননা টানা পতন কিংবা টানা উত্থান কোনোটাই বাজারের জন্য ইতিবাচক নয়। আর বাজারে এমন ধারা বিদ্যমান থাকলে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের পাশাপাশি সাধারণ বিনিয়োগকারীদেরও আস্থা ফিরে আসবে। বাজারের আরো উন্নতি হওয়ার সুযোগ রয়েছে। উত্থান পতন থাকবে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।

সোমবার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫৬০৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩১৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৫ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ২০২৫ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৩০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১৫টির, কমেছে ১৬৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২৯৭ কোটি ৯৩ লাখ ৬৫ হাজার টাকা।
এর আগের কার্যদিবস অর্থাৎ রোববার ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫৫৮৩ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩০৮ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২০২০ পয়েন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ২৩২ কোটি ৯০ লাখ ৩৬ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৬৫ কোটি ৩ লাখ ২৯ হাজার টাকা।
এদিকে, দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক ৪২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১০ হাজার ৫৩৯ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৬২টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৯৯টির, কমেছে ১২৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৬৩ কোটি ১৭ লাখ ১৮ হাজার টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০