ভারতে ৮-১০ রাজ্যে ‘মোরা’ আঘাত হানবে

প্রচ্ছদ » আর্ন্তজাতিক » ভারতে ৮-১০ রাজ্যে ‘মোরা’ আঘাত হানবে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বাংলাদেশের দিকে ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ ভারতের অন্তত আট থেকে ১০টি রাজ্যে আঘাত হানবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বাংলাদেশের কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের ওপর দিয়ে ব্যাপক বৃষ্টিপাত ও ঝড়ো বাতাসের মাধ্যমে বয়ে যেতে পারে এই ঘূর্ণিঝড়।

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ তাদের পূর্বাভাসে জানিয়েছে, আসাম, মেঘালয়, ত্রিপুরা, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, অরুণাচল প্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, কেন্দ্রশাসিত আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হবে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া এই ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়।

আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এসব রাজ্যের ওপর দিয়ে ঘণ্টায় ৪৫-৫০ কিলোমিটার গতিতে প্রভাহিত হবে মোরা। আর আন্দামান দ্বীপপুঞ্জের ওপর দিয়ে ঝড়ের গতিবেগ হতে পারে ৬০ কিলোমিটার।

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, মোরা ঘূর্ণিঝড়টি খুব উন্মত্ত হয়ে উঠলে তা ১০০-১৩০ কিলোমিটার গতিবেগে বয়ে যেতে পারে। এ ছাড়া মোরার প্রভাবে ভারতের কেরালাসহ বেশ কিছু রাজ্যে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ।

এদিকে, সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করেছে। অধিদপ্তরের বিশেষ বিজ্ঞপিতে জানানো হয়েছে, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ’মোরা’ আরো সামান্য উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ জানান, ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৩৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৩০৫ কিলোমিটার দক্ষিণে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্ব এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৩৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্ব দিকে অবস্থান করছিল।

তিনি আরো জানান, এটি আরো ঘণীভূত ও উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে ৩০ মে সকাল নাগাদ চট্টগ্রাম-কক্সবাজার উপকূল অতিক্রম করতে পারে। ঘূর্ণিঝড় ’মোরা’ এর অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৬২ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৮৯ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১১৭ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর বিক্ষুব্ধ রয়েছে।

তথ্যসূত্র : ইন্ডিয়া টুডে ও টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০