মাগুরায় রেললাইন হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রচ্ছদ » জাতীয় » মাগুরায় রেললাইন হবে: প্রধানমন্ত্রী

পুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মাগুরাবাসীর অনেক দিনের দাবি- বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে রেললাইন হচ্ছে। কিন্তু এ অঞ্চলে রেললাইন নেই। আমি আগামীতে এ দাবি পূরণ করবো। মাগুরায়ও রেললাইনের ব্যবস্থা করে দেবো। আজ মঙ্গলবার বিকেলে মাগুরা মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়ামে এক জনসভায় তিনি এ প্রতিশ্রুতির কথা জানান।

জনসভার শুরুতে তিনি বর্তমান সরকারের সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনারা বারবার নৌকায় ভোট দিয়েছেন। যে নৌকায় ভোট দেওয়ায় দেশ স্বাধীন হয়েছে, আপনারা বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারেন, দেশের উন্নয়ন হয়েছে সেই নৌকায় আবারও ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দেবেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, দেশকে যখন উন্নতি করতে যাই তখনই একটি মহল বাধা সৃষ্টি করে।

তিনি আরও বলেন, ‘যারা ভোট চুরি ও দুর্নীতি করেছিল, দেশে জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে, আগুন দেয় তারা ক্ষমতায় আসলে দেশ ধ্বংসের পথে যাবে। কারণ তারা দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না।’

আমাদের ওয়াদা ছিল যুদ্ধাপরাধী ও জাতির পিতার হত্যাকারীদের বিচার করবো। এ বাংলার মাটিতেই বিচার করছি। যারা জঙ্গিবাদ করে, আমার দেশের ভাই বোনদের হত্যা করেছে তাদের স্থান বাংলার মাটিতে হবে না।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমার বাবার আদর্শ বাস্তবায়ন করতে দেশের মানুষের সেবা করতে দেশে ফিরে আসি। প্রয়োজন হলে বুকের রক্ত দিয়ে মানুষের সেবা করবো।’

জনসভা থেকে প্রধানমন্ত্রী ৩২৭ কোটি টাকার ২৮টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এসব প্রকল্পের মধ্য রয়েছে- মাগুরা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতাল, শ্রীপুর উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন, মোহাম্মদপুর উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন, ফটকি নদীর উপর ১০০.১০ মিটার ব্রীজ নির্মাণ, কাটাখালী জিসি-ইছাখাদা আর এন্ড এইচ পর্যন্ত প্রায় ৯.৭১ কিলোমিটার সড়ক, ৩০.৫০ মিটার নতুন বাজার সেতু, ৩৫০ ঘনমিটার প্রতি ঘন্টা ক্ষমতা সম্পন্ন ভূগর্ভস্থ পানি শোধনাগার, বীর মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়াম, সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের প্রশাসনিক ভবন।

এছাড়া রয়েছে বেলনগর এলাকায় হেচারীসহ আঞ্চলিক হাঁস প্রজনন খামার (তৃতীয় পর্যায়), আঞ্চলিক মসলা গবেষণা কেন্দ্রের জন্য আধুনিক প্রশিক্ষণ ভবন ও অতিথিশালা, মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়, ৫০ শয্যার শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবন, শালিখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ নির্দেশনায় মাগুরা টেক্সটাইল মিল পুনঃ উৎপাদন কার্যক্রম, শালিখা উপজেলার আড়পাড়া মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র এবং মাগুরা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটসহ ১৯টি প্রকল্প।

প্রধানমন্ত্রী এসময় ৯টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। প্রকল্পগুলো হচ্ছে, মাগুরা আঞ্চলিক পার্সপোর্ট অফিস ভবন, ফটকি নদীর উপর ৯৬ মিটার ব্রীজ নির্মাণ, বরইচারা আটিরভিটা-বরইচারা বাজার সড়কে ফটকি নদীর উপর ৬৬ মিটার ব্রীজ নির্মাণ, চিত্রা নদীর উপর ৯৬ মিটার ব্রীজ নির্মাণ, জাতীয় মহাসড়কের (এন-৭) মাগুরা শহর অংশ ৪ লেনে উন্নিতকরণ, মাগুরা পৌরসভার তৃতীয় নগর পরিচালনা ও অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (২য় পর্যায়), শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিইবেশন সেন্টার, শ্রীপুর উপজেলা মিনি স্টেডিয়াম এবং শালিখা উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ প্রকল্প।

জনসভায় দেওয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি আজ মাগুরায় এসে এসব প্রকল্পের উদ্বোধন করেছি। এ প্রকল্পগুলো মাগুরাবাসীর জন্য উপহার হিসেবে থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

December ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Nov    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১