সমঝোতা হলে নির্বাচন, না হলে অন্য সিদ্ধান্ত : শাকিব

প্রচ্ছদ » বিনোদন » সমঝোতা হলে নির্বাচন, না হলে অন্য সিদ্ধান্ত : শাকিব

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ৫ মে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। নির্বাচনের প্রচারণা নিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থী শিল্পীরা। এরই মধ্যে হঠাৎ করে গতকাল (২১ এপ্রিল) শিল্পী সমিতির জরুরি সভা ডাকেন সমিতির বর্তমান সভাপতি চিত্রনায়ক শাকিব খান। অনেকের ধারণা ছিল নির্বাচন বন্ধ করতেই শাকিব খানের জরুরি সভা।

এ নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থী ও সাধারণ ভোটারগণ বেশ উৎকণ্ঠায় ছিলেন। বিএফডিসির গতকালের পরিবেশ তাই বলে। কারণ বিএফডিসিতে গতকাল বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও ডিবি সদস্যদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গিয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে চিত্রনায়ক শাকিব খান বিএফিডিসিতে আসেন এবং এরপরই শিল্পীদের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় পরিচালক সমিতির উকিল নোটিশে বেশ চটেছেন তিনি। তবে সভায় নির্বাচন স্থগিতের বিষয়ে কোনো কথা বলেননি তিনি।

এ বিষয়ে শাকিব খান বলেন, ‘শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে অনেকে মাসল পাওয়ার দেখাচ্ছে। এটা তো রাজনীতির মাঠ নয়। শিল্পী সমিতির নির্বাচন আগে এমন ছিল না। এরা কারা তাদেরকে খুঁজে বের করেন।’

পরিচালক সমিতি থেকে উকিল নোটিশ পাঠানো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘একটি দৈনিক পত্রিকায় সাক্ষাৎকার দিয়েছি। সেখানে আমি খারাপ কিছু বলিনি। আর এরকম কথা এর আগেও অনেকে বলেছেন। তখন পরিচালক বদিউল আলম খোকন সাহেব কোথায় ছিলেন? তখন তিনি কিছু বলেননি কেন? পরিচালক সমিতি শিল্পীকে উকিল নোটিশ দিতে পারেন না।’

তিনি আরো বলেন, ‘কলকাতার জিৎ ও দেবদের কাছে আমার সম্মানহানি হয়েছে। তারা দেখছে একজন সুপারস্টারের বিচার হয়। এটা নিয়ে কলকাতায় হাসাহাসি করছেন। যৌথ প্রযোজনার সিনেমায় কাজ করায় কিছু লোক আমার পিছনে লেগেছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘শিল্পী সমিতির মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে এ বিষয়টি নিয়ে সমঝোতা হলে নির্বাচন হবে, তা না হলে অন্য সিদ্ধান্ত নিব।’

এর আগে বাংলাদেশের একটি জাতীয় দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চলচ্চিত্র পরিচালক ও প্রযোজকদের হেয় করায় শাকিব খানকে বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) উকিল নোটিশ পাঠানো হয়। এ অভিনেতাকে উকিল নোটিশ পাঠায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি।

গত ১৬ এপ্রিল দেশের একটি দৈনিক পত্রিকায় দেয়া সাক্ষাৎকারে এক প্রশ্নের উত্তরে শাকিব খান বলেন, ‘এখন যেহেতু বেশি সিনেমা হচ্ছে না, তাই বেকার লোকের সংখ্যাও বেশি। পরিচালক সমিতির তালিকা দেখবেন, অনেক পরিচালক। তারা এফডিসিতে আড্ডাও মারছেন। কিন্তু কাজ করছেন কতজন? প্রযোজকের ক্ষেত্রেও দেখবেন একই অবস্থা। শিল্পীদের ক্ষেত্রেও তাই। অনেক শিল্পী তো নিবন্ধিত আছেন, কাজ করছেন কতজন? আমার মনে হয় এই দেশে এক নম্বর হওয়াটা একটা যন্ত্রণার ব্যাপার। একদিন বা দুই দিনের জন্য হলে ঠিক আছে, কিন্তু দীর্ঘদিন প্রথম স্থান ধরে রাখলে তখন শত্রুর অভাব হয় না। ব্যাপার না, আমার নামে নাম-বদনাম দুই-ই চলতে হবে।’

তার এই বক্তব্যের মাধ্যমে শাকিব নির্মাতাদের হেয় করেছেন বলে দাবি পরিচালক সমিতির। তারা শাকিবের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তার আগে এ উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন বলে জানা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০