পুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক : দেশের প্রদান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বুধবার মূল্য সূচকের সামান্য উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন ডিএসইতে আগের দিনের তুলনায় লেনদেনও সামান্য বেড়েছে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে।

বিশ্লেষকদের মতে, সামনের দিনগুলো আরো ভাল যাবে বাজার। কোম্পানিগুলোর মুনাফা বৃদ্ধি ও লভ্যাংশ ঘোষণার মৌসুম। যেসব কোম্পানির ডিসেম্বর ক্লোজিং সম্পন্ন হয়েছে তারা ডিভিডেন্ড দিচ্ছে। আর এ কারণেও বর্তমানে মার্কেট ভালো অবস্থায় রয়েছে। বাজারকে ভাল করার জন্য সরকারের সবধরনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া মিউচ্যুয়াল ফান্ডগুলো সরকারের নিয়ন্ত্রণে। পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে আসতে সরকার তাদেরকে বাধ্য করছে। নতুন নতুন কোম্পনি বাজারে আসছে তাই দিন দিন বিনিয়োগকারির সংখ্যা বাড়ছে এবং বাজারের বলিয়ম বাড়ছে। আরো ভাল হবে বলে আশা করছেন তারা।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, বুধবার ডিএসইতে এক হাজার ২৯০ কোটি ৩৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের তুলনায় ২৭ কোটি ৩৮ লাখ টাকা বেশি । গতকাল ডিএসইতে এক হাজার ২৬৩ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

আজ ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩২৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৪১টির, কমেছে ১৩৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৯টির শেয়ার দর।

এদিকে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ১১ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৭৩৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৩০১ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ১১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে দুই হাজার ৭৭ পয়েন্টে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ সিএসইতে ৮০ কোটি ৯২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৮০৩ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৬৭টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩০টির, কমেছে ১১০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০