১৫ শতাংশ ভ্যাট হারে অনড় অর্থমন্ত্রী

প্রচ্ছদ » Breaking News || Slider || অর্থনীতি » ১৫ শতাংশ ভ্যাট হারে অনড় অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আবারও জানালেন ভ্যাটের হার ১৫ শতাংশই থাকছে। নতুন ভ্যাট (মূল্য সংযোজন কর) আইন নিয়ে ব্যবসায়ীদের আপত্তির মুখেও অনড় তিনি।

সচিবালয়ে সোমবার (১৭ এপ্রিল) ব্যবসায়ীদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকের পর অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমন কথাই জানালেন তিনি।

নতুন ভ্যাট আইন আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর হচ্ছে। এ আইনে ১৫ শতাংশ ভ্যাটের কথা বলা হলেও ব্যবসায়ীরা তা ১০ শতাংশ করার দাবি জানিয়ে আসছেন। তবে অর্থমন্ত্রী বারবারই এ দাবি নাকচ করে দিয়েছেন। ভ্যাট আইন কি কার্যকর হচ্ছে- এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘অবকোর্স কার্যকর হচ্ছে।’ ভ্যাটের হারের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘টু থিংস আই হ্যাভ টোল্ড দেম দ্যাট ইট ইজ গোয়িং টু বি ইফেক্টিভ ফার্স্ট অব জুলাই। রেট উইল বি অনলি ১৫ পারসেন্ট।’ ‘এটা ব্যবসায়ীরা মেনে নিয়েছেন কিনা- এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘সেটা তাদেরকে জিজ্ঞেস করুন।’

বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান, এফবিসিসিআই’র সভাপতির চলতি দায়িত্বে থাকা সহ-সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি সালমান এফ রহমান, একে আজাদ, এফবিসিসিআইয়ের উপদেষ্টা ও ভ্যাট আইন বিশেষজ্ঞ মঞ্জুর আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আজকের ফলপ্রসূ এবং যুক্তিপূর্ণ আলোচনা হয়েছে। শেষ করার আগে অর্থমন্ত্রী বলেছেন, ক্ষুদ্র আকারে আরেকবার বসবেন। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটা রাজনৈতিক সরকার ক্ষমতায়। আমাদের অনেক কিছু বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমাদের মনে রাখতে হবে, আমাদের এটা মেয়াদেরও শেষ সময়।’
তিনি বলেন, ‘আমাদেরকে একদিকে ভ্যাট আইনটা যেমন কার্যকর করতে হবে। অপরদিকে দেশের সাধারণ মানুষের স্বার্থকেও আমাদের রক্ষা করতে হবে।’

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘একটা জিনিস তিনি (অর্থমন্ত্রী) বলে গেছেন, এই সরকার বাস্তবসম্মত সিদ্ধান্ত নেবে। এমন সিদ্ধান্ত হবে, যাতে জনগণ খুশি হবে, ব্যবসায়ীরাও খুশি হবে।’
ব্যবসায়ীদের মধ্যে শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, দেশে ২ কোটি ২৪ লাখ প্রান্তিক ব্যবসায়ী রয়েছে। অর্থমন্ত্রী নোট নিয়েছেন এবং ব্যবসায়ীদের বলেছেন, আরেকবার আলোচনা করে ভ্যাট আইন বাস্তবায়নে যাবেন। ভ্যাট ১০ শতাংশ রাখতে ব্যবসায়ীদের দাবির বিষয়ে অর্থমন্ত্রী এখনও সিদ্ধান্ত দেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

November ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Oct    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০