কাবুলে সামরিক ঘাঁটিতে হামলায় নিহত ১১

প্রচ্ছদ » আর্ন্তজাতিক » কাবুলে সামরিক ঘাঁটিতে হামলায় নিহত ১১

kabulপুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক: আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের একটি সেনা ঘাঁটিতে হামলার ঘটনায় ১১ সেনা নিহত হয়েছেন। একটি মিলিটারি একাডেমীর কাছেই ওই সেনা ঘাঁটি অবস্থিত। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পাঁচ জঙ্গি রকেট চালিত গ্রেনেড এবং স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিয়ে সুরক্ষিত মার্শাল ফাহিম সামরিক একাডেমির কাছে অবস্থিত ওই সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালায়। খবর আল জাজিরা।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ওই হামলার ঘটনায় আরও ১৬ আফগান সেনা আহত হয়েছেন। ওই মুখপাত্র আরও জানিয়েছেন, পাঁচ জঙ্গি ওই হামলা চালিয়েছে। এদের মধ্যে চারজনই সেনাদের সঙ্গে লড়াইয়ে নিহত হয়েছেন এবং বাকি একজনকে আটক করা হয়েছে।

জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) মুখপত্র আমাক নিউজ এজেন্সির এক খবরে জানানো হয়েছে, আইএস যোদ্ধারা ওই হামলা চালিয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার ভোর পাঁচটা থেকে গোলাগুলি শুরু হয়। প্রথম এক ঘণ্টায় ভারী বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পাওয়া যায়। এরপর থেমে থেমে গোলাগুলি চলে।

গত কয়েকদিনের মধ্যে আফগানিস্তানে কয়েক দফা হামলার ঘটনা ঘটল। গত শনিবার শহরের সিটি সেন্টারের কাছে শক্তিশালী গাড়ি বোমা হামলা চালায় তালেবান গোষ্ঠী। বিস্ফোরক বোঝাই অ্যাম্বুলেন্সে করে চালানো ওই হামলায় শতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। ওই হামলায় আরও ১৯১ জন আহত হয়েছে। তালেবান জঙ্গি গোষ্ঠী ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে। সরকারি কর্মকর্তারা জঙ্গিদের লক্ষ্য ছিল বলে জানানো হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন স্থানে হামলা চালাচ্ছে আইএস এবং তালেবান জঙ্গিরা।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেনারেল দাওলাত ওয়াইজিরি বিবিসিকে জানান, দুই হামলাকারী নিজেদের সঙ্গে থাকা বিস্ফোরকে বিস্ফোরন ঘটিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে। আরও দু’জন নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত হয়েছে এবং বাকি একজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে চারটি একে-৪৭এস, একটি আত্মঘাতী পোশাক এবং একটি রকেট লঞ্চার জব্দ করা হয়েছে।

এর আগে চলতি মাসের ২১ তারিখে একটি ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে তালেবান জঙ্গিদের হামলায় কমপক্ষে ৪০ জন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জনই বিদেশি নাগরিক। ঘটনাস্থলে বন্দুকধারীদের সঙ্গে বিশেষ বাহিনীর প্রায় ১২ ঘণ্টা লড়াই চলে। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর বন্দুকধারীদের প্রতিহত করে বিলাসবহুল ওই হোটেলের নিয়ন্ত্রণ নেয় নিরাপত্তা বাহিনী।

ওই হামলার মাত্র চারদিন পরেই আফগানিস্তানে সেভ দ্য চিলড্রেনের কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ছয়জন নিহত হয়। কয়েকজন বন্দুকধারী কার্যালয়ের ভেতরে প্রবেশ করে এবং এর পরপরই ভয়াবহ বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যায়।জালালাবাদে অবস্থিত আন্তর্জাতিক সহায়তা সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেনের কার্যালয়ে ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

September ২০২১
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Aug    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০