কুমিল্লায় প্রচারণার প্রথম দিনেই সংঘর্ষ-গুলি

প্রচ্ছদ » সারাদেশ » কুমিল্লায় প্রচারণার প্রথম দিনেই সংঘর্ষ-গুলি

comilla bnpপুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক: জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারণার প্রথম দিনেই কুমিল্লা-৬ (সদর ও সিটি কর্পোরেশন) আসনে সংঘর্ষ ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। অন্তত ১০টি স্থানে ধানের শীষের মিছিলে নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি দলীয় প্রার্থী হাজী আমিন উর রশীদ ইয়াছিন। হামলা ও গুলিতে ধানের শীষের অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী ও সমর্থক আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

সোমবার রাতে কুমিল্লা সদর আসনের বিএনপি দলীয় প্রার্থী হাজী ইয়াছিনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির মিডিয়া সেলের প্রধান আসাদুর রহমান সাংবাদিকদের ই-মেইল বার্তায় জানান, কুমিল্লা-৬ আসনের অন্তত ৭৫টি স্থানে ধানের শীষ প্রতীকের পক্ষে শোভাযাত্রা বের করা হয়। এ সময় আওয়ামী সমর্থকরা অন্তন্ত ১০টি স্থানে গুলি ককটেল ও হামলা চালায়। এ ঘটনায় বিএনপির অর্ধশত নেতাকর্মী আহত হয়।

অভিযোগ করা হয়, সোমবার বিকেল ৩টা থেকে ৬টা পর্যন্ত কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন ও আদর্শ সদর উপজেলার প্রতিটি ওয়ার্ডে ধানের শীষ প্রতীকের সমর্থনে শোভাযাত্রা বের করা হলে নগরীর ২২নং ওয়ার্ডে নৌকার সমর্থকরা হামলা করে। এ সময় ব্যাপক গুলিবর্ষণ ও ককটেল নিক্ষেপ করে। নগরীরর ১৯নং ওয়ার্ডে কাজী ইকরাম ১৩নং ওয়ার্ডে জাবেদ, ২০নং ওয়ার্ডে কাজী মালেক, ২২নং ওয়ার্ডে পলাশ আহত হন।

নগরীর মধ্যম আশ্রাফপুর এলাকায় শোভাযাত্রা চলাকালে গুলি ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এ ঘটনায় কাউন্সিলর মাহবুবুর রহমান, ইকরাম, আলমগীর, নাহিদুজ্জামান নাহিদ, নোয়েল, সালাহ উদ্দিন রকি, রবিন, জহির আহত হয়। এছাড়াও আমড়াতলী ইউনিয়নের ৩টি স্থানে হামলা করা হয়। এ সময় দোকানপাট ভাঙচুর করা হয়। দক্ষিণ দুর্গাপুর ইউনিয়নের ধনপুর, বলারামপুর এলাকায় মোটরসাইকেল বহর নিয়ে হামলা করা হয়। এতে নাঈম, ওয়াসিম, রায়হান আহত হয়। খবর পেয়ে আহতদের দেখতে হাসপাতালে যান বিএনপির প্রার্থী হাজী আমিন উর রশিদ ইয়াছিন।

বিএনপির অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর বলেন, বিএনপির অভিযোগ সঠিক না, বরং তাদের হামলায় সদর দক্ষিণের কচুয়া চৌমহনী এলাকার সানী নামে আমাদের এক কর্মী মারাত্মক আহত হয়েছে। সে বর্তমানে কুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আবু সালাম মিয়া বলেন, হামলার কথা শুনেছি, তবে কেউ অভিযোগ করেনি।

কুমিল্লা জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর সাংবাদিকদের বলেন, এ বিষয়ে আমার কাছে কোনো খবর নেই। কেউ অভিযোগও করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

September ২০২১
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Aug    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০