সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা

প্রচ্ছদ » রাজনীতি » সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা

পুঁজিবাজার রিপোর্ট প্রতিবেদক : সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ একাংশ) আসনের উপনির্বাচনে ছয়জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে নির্বাচনী মাঠে নেমেছেন।

মঙ্গলবার (১৫ জুন) সশরীরে সিলেট আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ে হাজির হয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন তারা। তবে মনোনয়নপত্র দেয়ার সময় রিটার্নিং কর্মকর্তা থেকে শুরু করে প্রার্থী কেউই মানেননি স্বাস্থ্যবিধি।

তাদের সঙ্গে দলীয় নেতাকর্মী ও তাদের সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন। তাদেরও বেশিরভাগের মুখে মাস্ক দেখা যায়নি।

মনোয়নপত্র জমা দেয়া হেভিয়েট তিন প্রার্থী হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত হাবিবুর রহমান হাবিব, স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়া বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য শফি আহমদ চোধুরী এবং জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী মো. আতিকুর রহমান।

এই তিনজন ছাড়াও আরও তিনজন স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোনয়ন ফরম জমা দেন। এরা হলেন- জাহেদুর রহমান মাসুম, জুনায়েদ মুহাম্মদ মিয়া এবং ফাহমিদা হোসেন রুমা।

এছাড়া আসন্ন উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থিতা ঘোষণা দিয়ে মাস খানেক প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে শেষ মুহূর্তে সরে দাঁড়ালেন ব্যারিস্টার মোস্তাকিম রাজা চৌধুরী। মঙ্গলবার মনোনয়ন ফরম জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল। এদিন তিনি তার মনোনয়ন ফরম জমা দেননি।

এদিকে তিন হেভিয়েট প্রার্থী আওয়ামী লীগ মনোনীত হাবিবুর রহমান হাবিব, স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়া বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক সংসদ সদস্য শফি আহমদ চোধুরী ও জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী মো. আতিকুর রহমান আতিক কেউই মনোনয়ন ফরম জমা দেয়ার সময় মাস্ক পড়েননি।

আতিকুর রহমান আতিক দুপুরে সিলেট আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসে সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফয়সল কাদেরের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় তার সঙ্গে থাকা কেউই মাস্ক পড়েননি। একে অপরের গা ঘেঁষে দাঁড়িয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ সময় সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফয়সল কাদেরের মুখেও মাস্ক দেখা যায়নি।

এ বিষয়ে ফয়সল কাদের বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই মনোনয়নপত্র নেয়া হয়েছে। তবে দু-একজন মাস্ক পড়েননি। আগামীতে স্বাস্থ্যবিধি রক্ষায় আমরা আরও সচেষ্ট থাকব।

তিনি আরও বলেন, ছয় প্রর্থীর জমা দেয়া মনোনয়নপত্রগুলো যাচাই-বাছাই করা হবে।

গত ১১ মার্চ এই আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে মারা যান। করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় কয়েক দফা পিছিয়ে ২৮ জুলাই এই আসনে ভোট গ্রহণের তারিখ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, সিলেট-৩ আসনে মোট ২ লাখ ৫৫ হাজার ৩০৯ ভোটারের মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ২৮ হাজার ৬১৮ এবং নারী ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ২৬ হাজার ৬৯১ জন।

পুঁজিবাজার রিপোর্ট – আ/ব/সি/ ১৬ জুন , ২০২১।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

August ২০২১
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Jul    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১