স্বস্তির সপ্তাহ পার করলো বিনিয়োগকারীরা

প্রচ্ছদ » বাজার বিশ্লেষন » স্বস্তির সপ্তাহ পার করলো বিনিয়োগকারীরা

পুঁজিবাজার রিপোর্ট ডেস্ক : বাজারের সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় বিনিয়োগকারীর মধ্যে চাঞ্চল্যতা ফিরে এসেছে। যার কারনে গত সপ্তাহের ৫ কার্যদিবসের মধ্যে ৪ দিনই বাড়ছে সূচক পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেনের পরিমানও। আর এই উত্থানের ফলে স্বস্তিতে সপ্তাহ পার করলো বিনিয়োগকারীরা। তবে ধারবাহিকতায় উত্থানের ফলে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা বাজার কিছুটা পর্যবেক্ষণ করছেন। যে কারনে গত সপ্তাহে সূচকে কোন ধরণের নেতিবাচক প্রভাব পড়েনি বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

সাপ্তাহিক ব্যবধানে দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে উর্ধ্বমুখী প্রবণতা বিরাজ করছে। আর সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেনের পরিমানও। সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হওয়া ৫ কার্যদিবসের মধ্যে চার দিনই বড়েছে সূচক। তবে সূচক বাড়লেও এর মাত্রা ছিলো খুব বেশি। এদিকে সূচক বাড়লেও কমেছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দর। আর সপ্তাহ শেষে ডিএসইতে গড় লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৭৪ কোটি ১২ লাখ ১০ হাজার ২৫৪ টাকা। আর সপ্তাহজুড়ে ডিএসইর লেনদেন বেড়েছে ০.২৩ শতাংশ।

বাজারের সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় বিনিয়োগকারীর মধ্যে আগ্রহ বাড়ছে। যার কারনে বাড়ছে লেনদেন। তবে ধারবাহিকতায় উত্থানের ফলে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা বাজার কিছুটা পর্যবেক্ষণ করছেন। যে কারনে গত সপ্তাহে চার কার্যদিবস সূচকে বড় ধরণের কোন প্রভাব পড়েনি বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

বিশ্লেষণে দেখা গেছে, সপ্তাহিক ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৮৪.৮৭ পয়েন্ট বা ১.৫২ শতাংশ বেড়েছে। আর ডিএসইএক্স শরিয়াহ সূচক বেড়েছে ৮.১৫ পয়েন্ট বা ০.৬২ শতাংশ ও ডিএসই ৩০ সূচক বেড়েছে ২৮.৬০ পয়েন্ট বা ১.৪২ শতাংশ। আর সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে ৩৩৪টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৭টি, কমেছে ১৫২টি, অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টি এবং লেনদেন হয়নি ১টি কোম্পানির। এগুলোর উপর ভর করে মোট ৫ হাজার ৩৭০ কোটি ৬০ লাখ ৫১ হাজার ২৭৪ টাকা লেনদেন হয়েছে। দৈনিক গড় হিসাবে এ লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৭৪ কোটি ১২ লাখ ১০ হাজার ২৫৪ টাকা। যা আগের সপ্তাহে ৫ হাজার ৩৫৮ কোটি ৩৪ লাখ ৫৯ হাজার ৪৮ টাকা লেনদেন হয়েছিল। সে হিসেবে আগের সপ্তাহের তুলনায় ডিএসইতে মোট লেনদেনের পরিমান বেড়েছে ১২ কোটি ২৫ লাখ ৯২ হাজার ২২৬ টাকা।

মোট লেনদেনের ৯১.৪৭ শতাংশ এ ক্যাটাগরিভুক্ত, ৪.৩০ শতাংশ বি ক্যাটাগরিভুক্ত, ৩.১২ শতাংশ এন ক্যাটাগরিভুক্ত এবং ১.১১ শতাংশ জেড ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের মধ্যে হয়েছে।

এদিকে, দেশের অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসইএক্স বেড়েছে ১৬০.৯৩ পয়েন্ট ১.৫৩ শতাংশ। সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ২৮৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৩টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ১২০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টির। আর সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হয়েছে ৩০৯ কোটি ৮৫ লাখ ১৪ হাজার ৭৩৪ টাকার শেয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Live Video

সম্পাদকীয়

অনুসন্ধানী

বিনিয়োগকারীর কথা

আর্কাইভস

December ২০২০
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
« Nov    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১